নবীন ওসির জয়জয়কার সিএমপিতে, ১৬ থানার ১৩ টিতেই নবীন

307
 জালালউদ্দিন সাগর |  রবিবার, জুলাই ৩, ২০২২ |  ১:৫৯ অপরাহ্ণ
সালেহ মোহাম্মদ তানভীর
       
Advertisement

ওসিদের (ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা) চেয়ার বদল হয় কিন্তু ওসি বদল হয় না, এক থানা থেকে বদলি হয়ে যোগদেন অন্য থানায়। চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) বিভিন্ন থানাতে কর্মরত ওসিদের নিয়ে এমন অভিযোগ দীর্ঘদিনের। এই অভিযোগ যে শুধু নগরবাসির তা নয়-এই অভিযোগ সিএমপিতে কর্মরত পরিদর্শক পদমর্যাদার কর্মকর্তাদেরও। পেশাগত কারণে বিষয়টি নিয়ে কেউ সমালোচনা না করলেও কোনো এক সময় এই বিষয়টি নিয়ে পরিদর্শক পদমর্যাদার কর্মকর্তাদের মধ্যে হতাশা-ক্ষোভ ছিলো অনেক বেশি। সিএমপির সেই চিত্র বদলে গেছে পুরোপুরি।

দীর্ঘদিনের হতাশাকে পেছনে ফেলে নবীনের জয়োল্ল্যাসে সিএমপিকে সাজিয়েছেন কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর। তরুণ কর্মকর্তাদের লুকিয়ে রাখা দীর্ঘ বছরের ক্ষোভকে পলকেই দূরে সরালেন সিএমপি থেকে।

Advertisement

২০২০ সালের ৭ সেপ্টেম্বর সিএমপিতে কমিশনার হিসেবে যোগ দিয়ে সেই চিত্রের আমুল পরিবর্তন আনেন তিনি। মাঠ পর্যায় থেকে যোগ্য নবীন পরিদর্শকদের খুঁজে বের করে ওসি হিসেবে দায়িত্ব দিলেন থানায়। এ জন্য অনেকের বিরাগভাজন হতে হয়েছিলো সদ্য যোগ দেওয়া কমিশনারকে। অনেকের অনুরোধ-তদবিরই হাসি মুখে এড়িছে গিয়েছিলেন তিনি।

এক বছর ১০ মাস দায়িত্বপালন করার পর সালেহ মোহাম্মদ তানভীরের যখন সিএমপি থেকে অন্যত্র যাওয়ার বদলির আদেশ হয় তখন সিএমপিতে নবীন ওসিদের জয়জয়কার। ১৬ থানার মধ্যে মাত্র তিন থানায় পুরাতন ওসি (যারা বিভিন্ন সময় অন্য কোনো থানায় দায়িত্ব পালন করেছেন) থাকলেও বাকি ১৩ থানায় দায়িত্ব পালন করছেন নবীন (কখনো অন্য কোনো থানায় দায়িত্ব পালন করেননি এমন) ওসিরা।

সিএমপি থেকে প্রাপ্ত তথ্যে জানা গেছে, বর্তমানে সিএমপির ১৬ থানার মধ্যে ১৩ টিতেই নিজ যোগ্যতায় সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করছেন এমন পরিদর্শকরা যারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-ওসি হিসেবে আগে কখনোই দায়িত্ব পালন করেননি।

সিএমপিতে ফ্রেশ ওসি হিসেবে দায়িত্ব পাওয়া থানাগুলো হলো, কোতোয়ালী, পাঁচলাইশ, হালিশহর, বাকলিয়া, সদরঘাট, পতেঙ্গা, চকবাজার, বন্দর, খুলশী, বায়েজিদ, ইপিজেড, কর্ণফুলী ও আকবরশাহ।

সিএমপি কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীরের এই পরিবর্তনকে সাদরে গ্রহণ করেছেন কর্মরত পুলিশ কর্মকর্তা এবং নগরবাসি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সিএমপির একাধিক কর্মকর্তা এই প্রতিবেদককে জানান, দীর্ঘদিন ধরে সিএমপিতে একটা জট লেগেছিলো। স্যাররা পুরাতন ওসি ছাড়া নতুনদের ওপর আস্থা রাখতে পারছিলেন না বলেই পরিদর্শক হিসেবে অনেক যোগ্য কর্মকর্তা নিজেকে প্রমাণ করার সুযোগ থেকে বঞ্চিত হচ্ছিলেন।

কর্মকর্তারা আরও বলেন, এই চ্যালেঞ্জটি নিয়েছিলন কমিশনার (সালেহ মোহাম্মদ তানভীর) স্যার। মাঠ পর্যায় থেকে নবীন কর্মকর্তাদের খুঁজে বের করে দায়িত্ব দিয়েছেন থানায়।

আইন বিশেষজ্ঞরা বলছেন, একই ব্যক্তি দীর্ঘ সময় একই পদে দায়িত্ব পালন করলে তিনি কাজে অভিজ্ঞ হন ঠিকই কিন্তু দীর্ঘ সময় এক পদে থাকার কারণে তার অপব্যবহারেরও সম্ভাবনা বেশি থাকে। যে কারণে নির্দিষ্ট সময় পর পরিবর্তন জরুরি।

নবীন হলেও সিএমপিতে বর্তমানে কর্মরত ওসিরা সবাই অত্যন্ত দক্ষ এবং চৌকশ বলে বন্তব্য করেছেন সিএমপির একাধিক কর্মকর্তা। তারা বলেন, থানাতে নবীন হলেও কাজে কেউ নবীন নয়। সবাই দীর্ঘ একটা সময় পুলিশে কাজ করছে। সবাই অভিজ্ঞ। সুযোগটা দরকার ছিলো যা কমিশনার স্যার তাদের দিয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বর্তমানে সিএমপির কোতোয়ালী থানার ওসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন পুলিশ পরিদর্শক জাহিদুল কবির। তিনি চলতি বছর (২০২২) ২৮ মার্চ ওসি হিসেবে যোগদান করেন কোতোয়ালী থানায়।

২৮ মার্চ ২০২২ থেকে সিএমপির পাঁচলাইশ থানাতে ওসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন পুলিশ পরিদর্শক নাজিম উদ্দিন মজুমদার।

২৬ মে ২০২২ থেকে হালিশহর থানায় ওসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন পুলিশ পরিদর্শক মোহাম্মদ জহির উদ্দিন।

২২ জুন ২০২২ সালে সিএমপির বাকলিয়া থানায় ওসি হিসেবে যোগদান করেন পুলিশ পরিদর্শক মোহাম্মদ আবদুর রহিম।

১৭ মার্চ ২০২২ থেকে আকবর শাহ থানায় ওসি হিসেবে হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন মোহাম্মদ পুলিশ পরিদর্শক ওয়ালী উদ্দিন আকবর।

২১ এপ্রিল ২০২২ সালে ওসি হিসেবে সদরঘাট থানায় যোগদান করেন পুলিশ পরিদর্শক মো. খাইরুল ইসলাম।

গত বছর (২০২১) সালের ১৭ আগস্ট থেকে পতেঙ্গা থানার ওসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন পুলিশ পরিদর্শক মোহাম্মদ কবির হোসেন।

৮ আগস্ট ২০২১ থেকে চকবাজার থানাতে ওসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন পুলিশ পরিদর্শক মোহাম্মদ ফেরদৌস জাহান।

২০২১ সালের ২ ডিসেম্বর থেকে সিএমপির বন্দর থানাতে ওসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন পুলিশ পরিদর্শক মো. জাহেদুল কবির।

২০২১ সালের ২ ডিসেম্বর থেকে খুলশী থানার ওসি হিসেবে দায়িত্বপালন করছেন পুলিশ পরিদর্শক সন্তোষ কুমার চাকমা।

২২ মে ২০২১ থেকে সিএমপির বায়েজিদ থানায় ওসির দায়িত্বে রয়েছেন পুলিশ পরিদর্শক মো.কামরুজ্জামান।

২৫ আগস্ট ২০২১ সালে ইপিজেড থানায় যোগদান করেন পুলিশ পরিদর্শক মো. কবিরুল ইসলাম।

২০২০ সালের ১৭ নভেম্বর থেকে ওসি হিসেবে কর্ণফুলী থানা দায়িত্বপালন করছেন পুলিশ পরিদর্শক দুলাল মাহমুদ।

এর বাহিরে যারা একাধিক থানাতে ওসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন তাদের মধ্যে তিনজন বর্তমানে সিএমপিতে ওসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

এরমধ্যে ২৫ আগষ্ট ২০২১ থেকে চান্দগাঁও থানার ওসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন পুলিশ পরিদর্শক মো. মঈনুর রহমান। এর আগে তিনি পাহাড়তলী থানার ওসি হিসেবেও দায়িত্বপালন করেছিলেন।

২৫ আগস্ট ২০২১ থেকে সিএমপির পাহাড়তলী থানাতে ওসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন পুলিশ পরিদর্শক মো. মোস্তাফিজুর রহমান। যিনি আগে ওসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন চান্দগাঁও থানাতে।

১৯ মে ২০২২ থেকে সিএমপির ডবলমুরিং থানায় ওসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন পুলিশ পরিদর্শক মো. সাখাওয়াৎ হোসেন। তার আগে তিনি ওসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন সদরঘাট থানায়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সিএমপি কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর বলেন, নতুন-পুরাতন বলতে তেমন কিছুই না। আমি চেষ্টা করেছি যোগ্যদের দায়িত্ব দিতে। যারা সৎ এবং যোগ্য তারাই আমার কাছে প্রাধান্য পেয়েছে। আমার সেই আস্থার অমর্যাদা কেউ করেন নি। যোগ করেন তিনি।

এসসি

Advertisement

CTG NEWS