সুদিনের মেয়র দূর্দিনে পরবাসী

অশনি’র আতঙ্কের মধ্যেই নগরপিতার বিদেশ সফর!

234
 জালালউদ্দিন সাগর |  মঙ্গলবার, মে ১০, ২০২২ |  ৫:০০ অপরাহ্ণ
রেজাউল করিম চৌধুরী
       
Advertisement

গতকাল এক পশলা বৃষ্টিতেই জলজট সৃষ্টি হয়ে হাঁটুপানিতে ডুবে যায় নগরীর ব্যস্ততম সড়ক ২ নম্বর গেট-মুরাদপুর এলাকা। ভোগান্তিতে পড়ে লাখো পথচারী। অন্যদিকে গত কয়েকদিন ধরে ঘূর্ণিঝড় অশনি’র অশনি সংকেতের আতঙ্কে দিন কাটছে নগরীর ৬০ লাখ মানুষের। আতঙ্কিত নগরবাসীকে অশনি’র আতঙ্কে রেখেই ১৫ দিনের জন্য ব্যক্তিগত সফরে মালয়েশিয়ার উদ্দেশ্যে চট্টগ্রাম ছেড়েছেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র, নগরপিতা রেজাউল করিম চৌধুরী।

আজ ১০ মে, মঙ্গলবার বিকাল ৩ টা ১৫ মিনিটে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে করে দেশ ছাড়েন তিনি। এর আগে সকাল ১০টায় ঢাকার উদ্দেশ্যে চট্টগ্রাম ত্যাগ করেন নগরপিতা।

Advertisement

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন সূত্রে জানা গেছে, ২৫ মে পর্যন্ত মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে মেয়ের বাসায় অবস্থান করবেন চসিক মেয়র।

ঘূর্ণিঝড় ‘অশনি’র মধ্যে নগরবাসীকে আতঙ্কে রেখে তার এই ব্যক্তিগত সফর স্বাভাবিকভাবে মানতে পারছে না নগরবাসী। নগরবাসীর অভিমত, শুধু সুদিনেই নয়, দূর্দিনেও নগরবাসীর পাশে থাকা নগরপিতার নৈতিক এবং সাংবিধানিক দায়িত্ব।

নগরবাসী অভিযোগ করে জানান, গতকালের বৃষ্টিতে নগরীর মুরাদপুর, জিইসি, ২ নম্বর গেইট, প্রবর্তক, চকবাজার, পাঁচলাইশ ইত্যাদি এলাকা তীব্র জলজটের সৃষ্টি হয়েছে। সড়কে পানির কারণে সিএনজি অটোরিকশা বিকল হয়ে সড়কের পাশে পড়ে থাকতে দেখা গেছে।

পানিতে ডুবে যাওয়া মোটরসাইকেল আলগি দিয়ে সড়ক পারাপার করেছেন অনেকে। পাশাপশি সড়কে খানাখন্দে ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে পথচারীদের। বিশেষ করে সড়কে পানি টইটম্বুর থাকায় নালার সীমানা নির্ধারণ নিয়ে পথচারীর চোখেমুখে আতঙ্কের ছাপ দেখা গেছে। অপরদিকে দুর্যোগ মুহুর্তে মেয়র রেজাউলের এই লম্বা সফর নিয়ে দলের নেতা কর্মীদের মাঝে গুঞ্জন চলছে।

নগরবাসী অভিযোগ করে আরও বলেন, মেয়রের দায়িত্ব গ্রহণের পর নগরীতে মশক নিধনের কোনো কার্যকর পদক্ষেপ নিতে পারেননি তিনি। এর আগে বর্ষা মৌসুমে খালে পড়ে নিহতের ঘটনার পর ঝুঁকিপূর্ণ খাল ও নালার পাশে বেস্টনী দেওয়া কথা বললেও তা এখনও দেওয়া হয়নি। সড়কের নালা খাল থেকে শুরু করে ওয়ার্ডের নালা খালগুলো বর্ষার আগে কেন পরিস্কার করা হলোনা সে বিষয় নিয়ে কোন জবাবদিহিতা নেননি তিনি। ঘূর্ণিঝড় অশনিতে নগরবাসী যখন উৎকণ্ঠায় রয়েছেন ঠিক তখনই তিনি ব্যক্তিগত সফরে বিদেশে যাচ্ছেন।

সুশীল সমাজের অভিমত, মেয়র বলেন আর কাউন্সিলর বলেন, সবাই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ফটোসেশনে এগিয়ে। দুই একজনকে কিছু দিতে পারলে কিংবা ওয়ার্ডে সামান্য একটু কাজ সম্পন্ন হলে ফেসবুকে ছবির বন্যা বইতে থাকে। ঘুর্ণিঝড় অশনির মধ্যে মেয়র মহোদয় ব্যক্তিগত সফরে যাচ্ছেন মালয়েশিয়ায়-যা হাস্যকর ছাড়া আর কিছুই নয়।

ঘূর্ণিঝড়ের মতো এমন দুর্যোগপূর্ণ মুহুর্তে মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরীর ব্যক্তিগত মালয়েশিয়া সফর কিভাবে দেখছেন জানতে চাইলে সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন সিটিজি নিউজকে বলেন, নগরপিতা হিসেবে এই দুর্যোগের মুহুর্তে নগরবাসীর পাশে থাকা অত্যাবশ্যকীয়। মেয়র সাহেবের হয়তো এমন কোনো জরুরি প্রয়োজন ছিলো যার কারণে ঘূর্ণিঝড়ের এই আতঙ্কের মধ্যেওে বিদেশ যেতে বাধ্য হয়েছেন।

একই প্রসঙ্গে জানতে চাইলে সাবেক চসিক প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন সিটিজি নিউজকে বলেন, হয়তোবা ওনার যাওয়াটা একান্ত জরুরি ছিল। যেকারণে এই অসময়েও তিনি মালয়েশিয়া গেছেন।

এসসি/এমজে

Advertisement

CTG NEWS