কাপ্তাই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১৯ বছরের জং ধরা অ্যাম্বুলেন্সেই চলে রোগী আনা-নেওয়া

127
 অর্ণব মল্লিক, কাপ্তাই প্রতিনিধি |  রবিবার, মে ৮, ২০২২ |  ১:৪০ অপরাহ্ণ
নতুন অ্যাম্বুলেন্স পাওয়ার জন্য একটি চাহিদাপত্র যথাযথ কর্তৃপক্ষের নিকট প্রেরণ করা হলেও তা এখন পর্যন্ত মিলেনি। রোগীর সেবা দিতে দুঃখের সীমা নেই স্বাস্থ কমপ্লেক্স কর্তৃপক্ষের।
       
Advertisement

কাপ্তাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স বর্তমানে আধুনিকমানের একটি হাসপাতালে রূপান্তিরত হলেও যুক্ত হয়নি রোগীদের সেবা দিতে নতুন কোনো অ্যাম্বুলেন্স। নতুন অ্যাম্বুলেন্স পাওয়ার জন্য একটি চাহিদাপত্র যথাযথ কর্তৃপক্ষের নিকট প্রেরণ করা হলেও তা এখন পর্যন্ত মিলেনি। রোগীর সেবা দিতে দুঃখের সীমা নেই স্বাস্থ কমপ্লেক্স কর্তৃপক্ষের। উনিশ বছরের পুরনো জরাজীর্ণ অ্যাম্বুলেন্সটি এখনও কাপ্তাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একমাত্র ভরসা। নেই কোন আধুনিক মানের ইমারজেন্সি সেবা। পথে পথে বিকল হওয়ার কারণে এ অ্যাম্বুলেন্সে থাকা রোগী এবং তার স্বজনদের পড়তে হচ্ছে নানা বিড়ম্বনায়।  

রোগীর স্বজনদের অভিযোগ, এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রোগী পরিবহনের একমাত্র বাহন পুরোনো একটি অ্যাম্বুলেন্স। এখন এটির বিভিন্ন সমস্যা দেখা দিচ্ছে। অনেক সময় হাসপাতালে রোগীকে নিয়ে আসতে গিয়ে পথের মধ্যে গাড়িটি বিকল হয়ে পড়ে। নেই কোনো আধুনিকায়ন। চিকিৎসার দিক থেকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি অনেক উন্নত হলেও রোগীদের যাতায়াতের সেবার মান ঢিলেঢালা। ফলে আমাদেরকে বাধ্য হয়ে অধিক টাকা দিয়ে বাহিরের থেকে অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া করতে হয়।

Advertisement

সরেজমিনে দেখা গেছে, কাপ্তাই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রায়সময় চিকিৎসা নিতে আসে অসহায় ও দুর্গম এলাকার বাসিন্দারা। অনেক সময় তাদের অ্যাম্বুলেন্স সেবা নিতে গেলে বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। বিশেষ করে হাসপাতালে থাকা একমাত্র অ্যাম্বুলেন্সটি যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে যেতে না পারলে বাইরে থেকে অধিক টাকা ব্যয়ে অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া করতে হয় রোগীদের।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, ২০০৩ সালে কাপ্তাই উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে সরকারি সহযোগিতায় অ্যাম্বুলেন্সটি প্রদান করা হয়। সেই থেকে আজও এই গাড়ি দিয়ে চলছে কাপ্তাই তথা পার্বত্য অঞ্চলের দুর্গম এলাকার রোগীদের যাতায়াত সেবা। বয়সের ভারে গাড়িটি নিরবিচ্ছিন্ন সেবা দিতে দিতে প্রায় দুর্বল হয়ে পড়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, রাঙামাটি পার্বত্য জেলাসহ বিভিন্ন উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে দেওয়া হচ্ছে সরকারি সহযোগিতায় আধুনিক মানের অ্যাম্বুলেন্স। কাপ্তাই উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে কবে আসবে আধুনিক মানের অ্যাম্বুলেন্স এবং কবে দুর্গম অঞ্চলের মানুষ এই সেবা পাবে সেই অপেক্ষায় প্রহন গুনছেন সেবা গ্রহীতারা।

এ বিষয়ে কাপ্তাই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. শাহনেওয়াজ হাসান বলেন, বর্তমানে হাসপাতালে থাকা অ্যাম্বুলেন্সটি অনেকদিন পুরনো হওয়ায় প্রায়সময় গাড়িটির মেরামত কাজ করতে হয়। তবে গত তিন বছর পূর্বে কাপ্তাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হতে নতুন অ্যাম্বুলেন্স পাওয়ার জন্য একটি চাহিদাপত্র যথাযথ কর্তৃপক্ষের নিকট প্রেরণ করা হয়েছিল। কিন্তু এখনো পর্যন্ত নতুন অ্যাম্বুলেন্স পায়নি কাপ্তাইবাসী। তাই কাপ্তাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যদি নতুন একটি অ্যাম্বুলেন্স প্রদান করা হয়, তবে এই হাসপাতালের জরুরি রোগীদের যাতায়াত সেবায় অনেক উপকারে আসবে এবং কাপ্তাই উপজেলা তথা পার্বত্য অঞ্চলের দুর্গম এলাকার বাসিন্দাদের কষ্ট লাঘব হবে।

উল্লেখ্য, পূর্বের তুলনায় স্বাস্থ্য সেবার মান দিন দিন বৃদ্ধি পাওয়াতে দুর্গম অঞ্চলের মানুষেরা পাচ্ছে এই হাসপাতালটিতে নিরবিচ্ছিন্ন চিকিৎসা সেবা। বর্তমানে হাসপাতালটিতে নতুন ভবন নির্মিত হওয়ার ফলে এবং অভিজ্ঞ চিকিৎসক ও কর্মচারীদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় কাপ্তাইয়ে চিকিৎসা সেবার বাতিঘর হিসেবে পরিচিতি পাচ্ছে কাপ্তাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। তাছাড়া সরকারের বিভিন্ন সহযোগিতায় বর্তমানে নিত্য নতুন ইউনিট ও নতুন যন্ত্রপাতি সংযোযিত হওয়ার ফলে হাসপাতালটির প্রতি আস্থা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে মানুষের।

এসসি

Advertisement

CTG NEWS