চবি শিক্ষক সমিতির নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থীর জয়

76
 নিজস্ব প্রতিবেদক: |  সোমবার, জানুয়ারি ১৭, ২০২২ |  ৮:৪৩ অপরাহ্ণ
       
Advertisement

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) শিক্ষক সমিতির নির্বাচনে আওয়ামীপন্থী হলুদ দলের মনোনীত প্রার্থীকে ৯৫ ভোটে হারিয়ে জয় পেয়েছেন আওয়ামীপন্থী বিদ্রোহী প্রার্থী অধ্যাপক ড. সেলিনা আখতার।

আজ সোমবার (১৭ জানুয়ারি) সকাল ৯টা থেকে বেলা দেড়টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান অনুষদ মিলনায়তনে ভোটগ্রহণ করা হয়।

Advertisement

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) শিক্ষক সমিতির নির্বাচনে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামীপন্থী হলুদ দলের বিদ্রোহী প্রার্থী ব্যবস্থাপনা বিভাগের অধ্যাপক সেলিনা আখতার এবং সাধারণ সম্পাদক পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছে হলুদ দলের মনোনীত প্রার্থী মার্কেটিং বিভাগের অধ্যাপক ড. সজীব কুমার ঘোষ।

সভাপতি পদে ৩৯১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন হলুদ দলের বিদ্রোহী প্রার্থী ব্যবস্থাপনা বিভাগের অধ্যাপক ড. সেলিনা আখতার। অপরদিকে হলুদ দলের মনোনীত সভাপতি প্রার্থী কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. মাে. হানিফ সিদ্দিকী পেয়েছেন ২৯৬ ভোট। এছাড়া বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছেন মার্কেটিং বিভাগের অধ্যাপক ড. সজীব কুমার ঘোষ

এদিকে গত দুই বছরের মত এবারের নির্বাচনেও অংশ নেয়নি বিএনপি-জামায়াতপন্থী শিক্ষকদের সাদা দল। ফলে সাধারণ সম্পাদকসহ ৬টি সদস্যপদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। এরা হচ্ছেন- জিন প্রকৌশল ও জৈবপ্রযুক্তি বিভাগের নাজনীন নাহার ইসলাম, বাংলা বিভাগের শারমিন মুস্তারী, সমাজতত্ত্ব বিভাগের মুহাম্মদ শোয়াইব উদ্দিন হায়দার, রসায়ন বিভাগের ফণীভূষণ বিশ্বাস, পদার্থবিদ্যা বিভাগের সৈয়দা করিমুন্নেছা ও আইন বিভাগের হোছাইন মোহাম্মদ ইউনুছ সিরাজী।

বাকি ৪টি পদে হলুদ দলের মনোনিত প্রার্থীদের বিপক্ষে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন একই দলের বিদ্রোহী প্রার্থীরা। হলুদ দলের মনোনিত প্রার্থীদের মধ্যে সহ-সভাপতি পদে নির্বাচিত হয়েছেন ভূগোল ও পরিবেশবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক আবদুল হক এবং কোষাধ্যক্ষ পদে নির্বাচিত হয়েছেন নির্বাচিত হয়েছেন মোহাং জসিম উদ্দিন। যুগ্ম সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছেন বিদ্রোহী প্রার্থী ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক এস. এ. এম. জিয়াউল ইসলাম

সহকারী নির্বাচন কমিশনার মনিরুজ্জামান ভূইঞা জানান, সুষ্ঠুভাবে ভোট সম্পন্ন হয়েছে। ভোট গণনা শেষে আজ সন্ধ্যায় ফলাফল ঘোষণা করা হয়। ৮৬২ জন ভোটারের মধ্যে ৭১১ জন ভোটে অংশ নিয়েছেন। এর আগে গত ১১ ও ১৩ জানুয়ারি অগ্রীম ভোট গ্রহণ করা হয়েছিল। তখন অগ্রীম ১৭১ জন ভোটে অংশ নিয়েছেন।

এমকে

Advertisement

CTG NEWS