নাটকের নতুন মোড়, ফের অস্ট্রেলিয়ার ভিসা বাতিল জকোভিচের

84
 খেলা ডেস্ক |  শুক্রবার, জানুয়ারি ১৪, ২০২২ |  ২:৩৯ অপরাহ্ণ
নাটকের নতুন মোড়, ফের অস্ট্রেলিয়ার ভিসা বাতিল জকোভিচের
       
Advertisement

কিছুদিন ধরে ক্রীড়া জগতের সবকিছু ছাপিয়ে আলোচনার কেন্দ্রে সার্বীয় টেনিস তারকা নোভাক জকোভিচ। আলোচনার সূত্রপাত ২০ বারের গ্র্যান্ড স্ল্যামজয়ী তারকার অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে খেলতে যাওয়া নিয়ে। নানা ঘটনার পর সার্বীয় তারকাকে রেখেই গতকাল বৃহস্পতিবার হয়ে যায় অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ড্র। কিন্তু, ড্র হওয়ার পর জকোভিচ নাটকে নতুন মোড়! ফের টেনিসের এক নম্বর তারকার ভিসা বাতিল করে দিল অস্ট্রেলিয়া।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদন অনুসারে, আজ শুক্রবার অস্ট্রেলিয়ার অভিবাসনমন্ত্রী অ্যালেক্স হকের সিদ্ধান্তে দ্বিতীয় বারের মতো বাতিল করা হলো জকোভিচের ভিসা। ফলে ড্র অনুষ্ঠিত হলেও সার্বিয়ান তারকা খেলতে পারবেন কি না, সেটা নিয়ে ফের সংশয় তৈরি হয়েছে।

Advertisement

অস্ট্রেলিয়ার অভিবাসনমন্ত্রী অ্যালেক্স বিবৃতিতে বলেন, ‘আজ আমি আমার ক্ষমতা প্রয়োগ করেছি। স্বাস্থ্য এবং ভালো শৃঙ্খলার ভিত্তিতে নোভাক জকোভিচের ভিসা বাতিল করা হলো। এর সঙ্গে জনস্বার্থও ছিল।’

বিবিসি বলছে—এখন দ্রুত কোর্টে আবার এ রায়ের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ করতে পারেন জকোভিচ। দ্রুত চ্যালেঞ্জ করে রায়ে না জিতলে সত্যি সত্যিই অস্ট্রেলিয়া ছাড়তে হতে পারে এই টেনিস তারকার।

শুধু তাই নয়, বিবিসি বলছে—যদি এবার অস্ট্রেলিয়ার ভিসা বাতিল হয়ে যায় তাহলে নতুন করে ভিসা পাওয়ার আগে দেশটিতে ঢুকতে তিন বছরের নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়তে পারেন জকোভিচ।

এর আগে গত ৬ জানুয়ারি মেলবোর্নে আসার পর জকোভিচের ভিসা প্রথমবার প্রত্যাহার করা হয়েছিল। তখন তাঁর ভিসা বাতিল করে ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষের হোটেলে আটকে রাখা হয়। অস্ট্রেলিয়ার পক্ষ থেকে জানানো হয়, দেশটিতে ভ্রমণের ক্ষেত্রে জকোভিচ শর্ত পূরণ করেননি। তাই তাঁর ভিসা বাতিল করা হয়েছে এবং তাঁকে পুনরায় দেশে ফেরত পাঠানো হবে।

ঘটনাটি নিয়ে ঝড় ওঠে টেনিস বিশ্বে। ফেরত পাঠানো এড়াতে অস্ট্রেলিয়ার হাইকোর্টে আবেদন করেন জকোভিচ। তোপের মুখে পড়ে অস্ট্রেলিয়ার আদালত শেষপর্যন্ত গত সোমবার জকোভিচকে মুক্তি দেওয়ার আদেশ দেন। এর পরেই মেলবোর্নের টেনিস কোর্টে অনুশীলনে ফেরেন জকোভিচ। অনুশীলনে ফেরার পর এক বিৃবতিতে সার্বীয় তারকা দাবি করেন, অস্ট্রেলিয়ার ট্রাভেল ডিক্লারেশন ফরম পূরণের সময় ভুল বাক্সে টিকচিহ্ন করেছিলেন তাঁর এজেন্ট। ভিসা-সংক্রান্ত যাবতীয় গোলযোগ এজেন্টের ভুলের কারণে হয়েছে।

এর পর গতকাল তাঁকে নিয়ে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ড্রও হয়ে যায়। কিন্তু, ড্র হওয়ার ২৪ ঘণ্টার মাথায় দ্বিতীয়বারের মতো ভিসা বাতিল হলো তাঁর।

এন-কে

Advertisement

CTG NEWS