৪ হাজার টাকার জন্য হত্যা, অবশেষে পিবিআইয়ের হাতে গ্রেফতার

67
 নিজস্ব প্রতিবেদক |  শুক্রবার, জানুয়ারি ৭, ২০২২ |  ৯:০১ অপরাহ্ণ
৪ হাজার টাকার জন্য হত্যা, ৪ মাস পর হত্যাকােরী গ্রেফতার
       
Advertisement

রাঙ্গামাটির অজ্ঞাত ব্যবসায়ী(৩৮) প্রধান আসামি লাট্রুস চাকমা প্রকাশ ইংস প্রকাশ এনজয় চাকমা (২২) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) । এসময় তার কাছ থেকে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত হাতুড়ি উদ্ধার করা হয়। ৪ হাজার টাকা ছিনতাইয়ের জন্য ওই ব্যবসায়ীকে হত্যা করা হয় বলে জানায় পুলিশ। 

বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) লংগদু থানার রনচ্ছড়া এলাকার দূর্ঘম পাহাড়ের গহীন জঙ্গল থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার লংগদু ইউনিয়নের গলাছড়ি এলাকার শান্তিময় চাকমার ছেলে।

Advertisement

বিষয়টি নিশ্চিত করেন চট্টগ্রাম জেলা পিবিআইয়ের পুলিশ সুপার নাজমুল হাসান।

তিনি বলেন, গত বছরের ১০ আগস্ট রাঙ্গামাটি কোতোয়ালী থানার বাংলাদেশ স্বশস্ত্র বাহিনী বোর্ড অফিসের পিছনের মাঝামাঝি ডোবার মধ্যে একটি অজ্ঞাতনামা পুরুষ (৩৮) উদ্ধার করে। মরদেহের শরীরের বিভিন্ন অংশে হাতুড়ি দ্বারা থেতলানো ও ধারালো অস্ত্র দ্বারা রক্তাক্ত কাটা জখম পাওয়া যায়। পরে এ ঘটনায় কোতোয়ালী থানায় পুলিশ বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা দুস্কৃতিকারীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে।

বিজ্ঞ আদালতের নির্দেশে পিবিআই চট্টগ্রাম জেলা মামলার তদন্ত শুরু করে। তথ্য প্রযুক্তির সহযোগীতায় হত্যাকারী শনাক্ত করা হয়। পরে গতকাল বৃহস্পতিবার লংগদুর দূর্ঘম পাহাড়ে অভিযান চালিয়ে প্রধান আসামি লাট্রুস চাকমাকে গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে ব্যবসায়ীকে হত্যার কথা স্বীকার করে।

তিনি আরও বলেন, অভিযুক্ত লাট্রুস চাকমা জানায়, ভিকটিম একজন আম ব্যবসায়ী ছিলেন। ঘটনার দিন ভিকটিমের কাছে আম বিক্রয়ের মোটা অংকের টাকা আছে মনে করে তাকে রাত্রিযাপনের প্রস্তাব দিয়ে কৌশলে লাট্রুস চাকমার ফার্নিচারের দোকানে নিয়ে আসে । পরে ভিকটিম রাতের খাবারের জন্য টাকা বের করলে ভিকটিমের নিকট বেশী টাকা দেখে তাকে হত্যার পরিকল্পনা করে এবং অভিযুক্ত লাট্রুস চাকমাসহ কয়েকজন মিলে ওই ব্যবসায়ীকে হাতুড়ি দিয়ে নৃশংসভাবে শরীরের বিভিন্ন অংশে এলোপাথাড়ি গুরুত্বর আঘাত করে হত্যা করে। পরে ভিকটিমের লাশ ঘটনাস্থল ডোবায় ফেলে দেয় হত্যাকারীরা এবং ভিকটিমের কাছে থাকা ৪ হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়।

গ্রেফতারকৃত আসামিকে আদালতে পাঠানো হয়েছে এবং বাকি আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান তিনি।

এফএম/

Advertisement

CTG NEWS