রাষ্ট্রপতির ডাকে সাড়া দিন: বিএনপিকে আবদুস সবুর

79
 রাজনীতি ডেস্ক : |  সোমবার, ডিসেম্বর ২৭, ২০২১ |  ৬:০৮ অপরাহ্ণ
রাষ্ট্রপতির ডাকে সাড়া দিন: বিএনপিকে আবদুস সবুর
       
Advertisement

মিথ্যাচার-বিভ্রান্তি বন্ধ করে রাষ্ট্রপতির আহ্বানে সাড়া দিতে বিএনপিকে আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার মো. আবদুস সবুর বলেছেন, সুযোগ বার বার আসে না। মিথ্যাচার-বিভ্রান্তি বন্ধ করে রাষ্ট্রপতির আহ্বানে সাড়া দিয়ে আপনাদের মতামত সেখানে পেশ করুন।

রোববার দুপুরে রাজধানীর ডেমরার হাজী নগর বালুর মাঠে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৬৮নং ওয়ার্ড ও সব ইউনিট আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে তিনি এ আহ্বান জানান।

Advertisement

সারুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা-৫ আসনের সংসদ সদস্য কাজী মনিরুল ইসলাম মনু।

এ সময় বক্তব্য দেন- ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মিজবাহুর রহমান ভূঁইয়া রতন ও শরফুদ্দীন আহমেদ সেন্টু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. মিরাজ হোসেন, মো. আক্তার হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম সারোয়ার কবির, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক এফএম শরিফুল ইসলাম শরিফ, ডেমরা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম মাসুদ, সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান মোল্লা সজল, ডিএসসিসির ৬৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাহমুদুল হাসান পলিন, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আরিফুল রহমান আরিফ প্রমুখ।

ইঞ্জিনিয়ার মো. আবদুস সবুর বলেন, নির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য দেশে যে গণতান্ত্রিক পদ্ধতি এটাই উত্তম পদ্ধতি। এই পদ্ধতি অনুকরণ করেই রাষ্ট্রপতি সব রাজনৈতিক দলের সঙ্গে বৈঠক করছেন। তিনি রাজনৈতিক দলগুলোর মতামতে সার্চ কমিটি গঠন এবং রাজনৈতিক দলগুলোর দেওয়া নাম যাচাই-বাছাই করে নির্বাচন কমিশন গঠন করা করবেন। এটাই হলো গণতান্ত্রিক এবং সবচেয়ে উত্তম পন্থা। সেটাকে নিয়েও বিএনপি আজ সমালোচনা করছে।

দেশে তথ্যপ্রযুক্তিতে বিপ্লব ঘটিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা- এমন মন্তব্য করে আবদুস সবুর আরও বলেন, ডিজিটাল বিপ্লবে অর্জিত সফলতার ফলে পৃথিবীর অনেক দেশেরই বাংলাদেশের সঙ্গে তাল মেলানোর সুযোগ নেই। পৃথিবীর হাতেগোনা কয়েকটি দেশ ফাইভ-জি যুগে প্রবেশ করেছে। আর বাংলাদেশ গত ১২ ডিসেম্বর থেকে ফাইভ-জি যুগে যাত্রা শুরু করেছে। বাংলাদেশ প্রযুক্তিতে ৩২৪ বছরের পশ্চাৎপদতা অতিক্রম করে কম্পিউটারে বাংলাভাষা উদ্ভাবন ও প্রয়োগে নেতৃত্ব দিচ্ছে, পৃথিবীতে ডিজিটাল বিপ্লব বাংলাদেশ থেকেই সূচনা হয়েছে।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় এই নেতা বলেন, পঁচাত্তরপরবর্তী ২১ বছরের শাসনামলে বাংলাদেশ বিনামূল্যে সাবমেরিন ক্যাবলে যুক্ত হওয়ার সুযোগ পেয়েছিল। কিন্তু তখনকার (বিএনপি-জামায়াত) সরকার সেই সুযোগ নেয়নি। গত এক যুগে সরকারি ও বেসরকারি তিনশর বেশি সেবা দিয়ে যাচ্ছে সারা দেশের ৮ হাজার ২৮০ ডিজিটাল সেন্টার। মোবাইল উৎপাদন ও সফটওয়্যার রপ্তানির ক্লাবে গর্বিত অংশীদার বাংলাদেশ। সারা বিশ্বের কাছে বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল।

দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে মো. আবদুস সবুর বলেন, নিজেদের মধ্যে প্রতিযোগিতা থাকবে। কিন্তু সেই প্রতিযোগিতা যেন প্রতিহিংসায় রূপ না নেয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ নির্দেশনা রয়েছে, আওয়ামী লীগে তৃণমূলে বিএনপি-জামায়াত ও সন্ত্রাসীদেরকে প্রাথমিক সদস্যও করা যাবে না। যাদের হাত ধরে দলে অনুপ্রবেশ ঘটবে তাদের বিরুদ্ধেও সাংগঠনিকভাবে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। দেশের ধারাবাহিক উন্নয়ন বজায় রাখতে আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আবারো নৌকায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে বিজয়ী করতে দলীয় নেতাকর্মীদের আহ্বান জানান তিনি।

Advertisement

CTG NEWS