‘খালেদা জিয়ার চিকিৎসার মেকানিজম বাংলাদেশে নেই’

188
 রাজনীতি ডেস্ক : |  শুক্রবার, নভেম্বর ২৬, ২০২১ |  ৬:৩৮ অপরাহ্ণ
‘খালেদা জিয়ার চিকিৎসার মেকানিজম বাংলাদেশে নেই’
       
Advertisement

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসার যে মেকানিজম তা বাংলাদেশে নেই উল্লেখ করে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, তিনি এখন তিলে তিলে মৃত্যুর দিকে যাচ্ছেন। চিকিৎসকরা বলেছেন- আগামী কয়েকদিন খুবই কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছেন তিনি (খালেদা জিয়া)।

শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে সোনার বাংলা পার্টির ১২তম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

Advertisement

মান্না বলেন, চিকিৎসকরা একটা অস্ত্রপচার করেছিল। যে নার্ভটা ছিড়ে গেছে তার চিকিৎসা শেষে তিনি সাময়িক ভালো ছিলেন। কিন্তু ভালোভাবে চিকিৎসার জন্য যে যন্ত্রপাতি বা চিকিৎসা ব্যবস্থা দরকার তা বাংলাদেশে নেই। এর জন্য বিদেশে নেওয়া দরকার যা এই সরকার দিচ্ছে না। প্রধানমন্ত্রী কত নিষ্ঠুর রসিকতা করে বলেছেন- তার (খালেদা জিয়া) জন্য যতটুকু করার করেছি।

আইন মানুষের জন্যই মানুষ আইনের জন্য নয় উল্লেখ করে মান্না বলেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবিতে আওয়ামী লীগের সঙ্গে থেকে শেখ হাসিনাসহ আমরাই বলেছিলাম আইন মানুষের জন্যই মানুষ আইনের জন্য নয়। তখন তত্ত্বাবধায়ক সরকার করার কোনো আইন ছিল না। পরবর্তীতে সেটা আইনে অন্তর্ভুক্ত করে তত্ত্বাবধায়ক সরকার দেওয়া হয়েছিল। তখন এত বড় পরিবর্তন যদি করা যায় এখন একটা মানুষকে চিকিৎসার জন্য বিদেশ পাঠানো যাবে না- এমন কোনো কথা হতে পারে?

তিনি আরও বলেন, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী এখন বিবর্ণ। কারো কোনো কথা বলার সাহস নেই। আর যদি বলেনও, আর তা যদি সরকারের পছন্দ না হয় উঠিয়ে নিয়ে যাবে তাকে। এরপর হয়ত কোথাও লাশ পাওয়া যাবে আর আপনি তার বিচারও চাইতে পারবেন না।

মান্না বলেন, আমি কতগুলো প্রোগ্রামে বক্তব্য দিলাম মায়ের ডাক অনুষ্ঠানে। ওই মায়েরা সন্তান হারিয়েছে কারো দুই বছর, কারো পাঁচ বছর, কারো দশ বছর৷তাদের কোনো খবরই নেই। তারা যায় কোর্টে, ডিবি অফিসে, পুলিশের কাছে। তারা মামলা পর্যন্ত নেয় না এবং পরিবার জানতে চায় আমার সন্তান কই, আমার বাবা কই, আর তারা বলে আমাদের কাছে কোনো খবর নেই।

তিনি বলেন, এ দেশে গত দেড় বছরে করোনার সময়ে প্রায় তিন কোটি ৪০ লাখ লোক দরিদ্রসীমার নিছে নেমেছে। পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন- আমরা এত উন্নতি করি সেটা চোখে পড়ে না আপনাদের কাছে। আবার তিনিই বলেন- এই উন্নতির ফলাফল দশ শতাংশ লোকই ভোগ করেছে, বাকি ৯০ শতাংশ মানুষের কাছে যায়নি। কোনো কোনো মন্ত্রী বলেন- আমরা উন্নয়নের রোল মডেল আর বিমান দিয়ে যাওয়ার সময় দেশকে সিঙ্গাপুর, লসঅ্যাঞ্জেলস দেখেন আর সাধারণ মানুষ বলে এটা লস বাংলাদেশ।

সিটি করপোরেশনের সমালোচনা করে মান্না বলেন, দক্ষিণ সিটি করপোরেশন একটা মানুষকে ময়লার গাড়িচাপা দিয়ে মেরে ফেলেছে। উত্তর সিটি করপোরেশন বলে আমরা বাকি থাকব কেন তারাও একজনকে চাপা দিয়ে মেরে ফেলেছে। দুইটা ট্রাক দুইজন মানুষকে মেরেছে পর পর দুই দিনে। দিনের বেলায় ময়লার গাড়ি কী করতে বের হয়? এগুলোতো রাতে কাজ করার কথা। কিন্তু কোনো রকম জবাবদিহিতা নেই তাদের। তারাতো বলেন- মানুষ আন্দোলনে নামে না তাহলে গত দুই-তিন দিনে এত আন্দোলন হয়েছে সেগুলো কী। হাফ পাশ, ভাড়া কমানো, নিরাপদ সড়কের দাবিতে মানুষ রাস্তায় নেমেছে।

তিনি বলেন, দেশে যে বিক্ষিপ্ত আন্দোলন হচ্ছে- তা স্ফুলিঙ্গ। আর এই স্ফুলিঙ্গ অচিরেই আগুন আগ্নেয়গিরি হয়ে উঠবে। সেজন্য সবাইকে প্রস্তুত থাকতে হবে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন- সোনার বাংলা পার্টির উপদেষ্টা আবুল কাশেম ফজলুল হক ও সভাপতি শাহ আবদুর নুর।

এমজে/

Advertisement

CTG NEWS