চমেক ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ

বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাখ্যান ছাত্রলীগ একাংশের

পক্ষপাতিত্ব ও বিতর্কিত সিদ্ধান্ত গ্রহণ

178
 নিজস্ব প্রতিবেদক |  বুধবার, নভেম্বর ২৪, ২০২১ |  ১:৫৬ অপরাহ্ণ
চমেকে ৫তলা থেকে লাফিয়ে যুবকের আত্মহত্যা
       
Advertisement

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) সংঘর্ষের ঘটনায় জড়িত নয় এমন ২৩ জনকে কোন রকম সাক্ষ্য প্রমাণাদি ছাড়া বহিষ্কার করার সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করেছে কলেজ ছাত্রলীগের একাংশ। গতকাল মঙ্গলবার রাতে গণমাধ্যমে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বহিস্কার সিদ্ধান্তকে প্রত্যাখ্যানের বিষয়টি জানানো হয়।

চমেক ছাত্রলীগের একাংশের সাত নেতাকর্মীর স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বহিষ্কারের সিদ্ধান্তকে পক্ষপাতিত্ব ও বিতর্কিত বলেও উল্লেখ করা হয়েছে। এজন্য কলেজ অধ্যক্ষ ও দুই শিক্ষককে দায়ী করা হয়।

Advertisement

অভিযোগে বলা হয়, নগর আওয়ামী লীগের এক নেতা ও বিএমএ চট্টগ্রাম শাখার এক চিকিৎসক নেতার দেয়া তালিকা অনুসারে শিক্ষার্থীদের বহিস্কার করা হয়। ব্যক্তিগত স্বার্থ হাসিলের উদ্দেশ্যে অধ্যক্ষ ডা. সাহেনা আক্তার, শিক্ষক ডা. মনোয়ারুল হক শামীম ও ডা. প্রণয় দত্তের প্রভাবে প্রভাবিত হয়ে একাডেমিক কাউন্সিল এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মাহাদী জে আকিবের ওপর হামলায় সরাসরি জড়িত ১৬ জনের বিরুদ্ধে সিসিটিভি ফুটেজ ও দায়েরকৃত মামলায় প্রমাণ থাকা সত্ত্বেও মাত্র ৭ জনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। বাকিদের বিরুদ্ধে কোন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। কিন্তু এ ঘটনায় সম্পৃক্ত নয় এমন ২৩ জনের বিরুদ্ধে কোনরকম সাক্ষ্য প্রমাণ ছাড়া শুধুমাত্র মৌখিক অভিযোগের উপর ভিত্তি করে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এমনকি তাদেরকে আত্মপক্ষ সমর্থনের কোন সুযোগও দেয়া হয়নি বলেও উল্লেখ করা হয়।

এনইউএস

Advertisement

CTG NEWS