‘পেট্রোল-অকটেন বাড়তি দামে বিক্রি করলে ব্যবস্থা’

154
 নিজস্ব প্রতিবেদক |  বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১১, ২০২১ |  ৬:১৩ অপরাহ্ণ
‘পেট্রোল-অকটেন বাড়তি দামে বিক্রি করলে ব্যবস্থা’
       
Advertisement

কেউ জ্বালানি তেলের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করলে বা সরকার নির্ধারিত মূল্যের বাড়তি দাম নিলে সেই ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। কারণ গত ৪ নভেম্বর লিটার প্রতি ডিজেল ও কেরোসিনের দাম ১৫ টাকা বাড়ানো হয়, ৬৫ থেকে বাড়িয়ে ৮০ টাকা করা হয়। কিন্তু অকটেন ও পেট্রোলের দাম অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে।

আজ ১১ নভেম্বর, বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমে পাঠানো বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।

Advertisement

বিজ্ঞপ্তিতে ‘পেট্রোল-অকটেন নিয়ে গুজব’ প্রসঙ্গে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ একটি ব্যাখ্যাও দিয়েছে। তাতে বলা হয়, বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের (বিপিসি) অধীন বিপণন কোম্পানির মাধ্যমে সারাদেশে নিরবচ্ছিন্নভাবে জ্বালানি তেলের সরবরাহ অব্যাহত রয়েছে। বর্তমানে দেশে অকটেন ও পেট্রোলের পর্যাপ্ত মজুত রয়েছে। গত ৯ নভেম্বর অকটেন ও পেট্রোলের মোট মজুত ছিল ৫৫ হাজার ৮০০ মেট্রিক টনের বেশি।

এছাড়া প্রতি বছরের মতো এ বছরও চাহিদানুযায়ী বিপিসি’র আমদানি পরিকল্পনা বা আমদানিসূচি অনুযায়ী নভেম্বর মাসে একটি পার্সেলে প্রায় ১৯ হাজার মেট্রিক টন অকটেন ইতোমধ্যে আমদানি করা হয়েছে এবং অপর একটি পার্সেলে ২০ হাজার মেট্রিক টনের বেশি অকটেন আমদানি করা হচ্ছে।

পাশাপাশি, ডিসেম্বর মাসে ৬৫ হাজার মেট্রিক টনের বেশি অকটেন আমদানির আমদানিসূচি চূড়ান্ত করা হয়েছে। অন্যদিকে ইস্টার্ন রিফাইনারি লিমিটেড এবং জ্বালানি তেল উৎপাদনকারী দেশীয় প্ল্যান্টসমূহে অকটেন ও পেট্রোল উৎপাদন অব্যাহত রয়েছে, যা জ্বালানি তেলের নিরবচ্ছিন্ন সরবরাহকে অরও সুসংহত করবে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সরকার নির্ধারিত দামের (ডিপোর ৪০ কিলোমিটারের মধ্যে অকটেন প্রতি লিটার ৮৯ টাকা এবং পেট্রোল প্রতি লিটার ৮৬ টাকা) অতিরিক্ত দামে কোনোক্রমেই কোনও পেট্রোল পাম্প জ্বালানি তেল বিক্রি করতে পারবে না।

এদিকে ডিজেলের পর পেট্রোল-অকটেনের দাম বাড়ানোর প্রক্রিয়ার কথা সঠিক না বলে জানিয়েছেন জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব আনিছুর রহমান। বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) এফইআরবি আয়োজিত ভার্চুয়াল সেমিনারে তিনি এ মন্তব্য করেন।

জ্বালানি বিভাগের সিনিয়র সচিব আরও বলেন, আমরা কিছু মিডিয়ায় এমন খবর দেখেছি। এসব খবরের কোনো সত্যতা নেই। সে কারণে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশের সিদ্ধান্ত হয়েছে, বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের চেয়ারম্যান এ বিষয়ে কাজ করছে।

এসসি

Advertisement

CTG NEWS