আনোয়ারায় মদ ও জুয়ার আসর গুড়িয়ে দিল প্রশাসন

229
 আনোয়ারা প্রতিনিধি : |  সোমবার, নভেম্বর ৮, ২০২১ |  ৮:২৩ অপরাহ্ণ
       
Advertisement

আনোয়ারা পুরাতন হাসপাতালের পরিত্যক্ত ভবন দখল করে গড়ে তোলা পাকিজা আখতার ওরফে পাইক্কনির মদ ও জুয়ার আখড়া অবশেষে গুড়িয়ে দিল উপজেলা প্রশাসন। সোমবার (৮ নভেম্বর) দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ জোবায়ের আহমেদের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে মাদকের আখড়াটি গুড়িয়ে দেয়। এসময় আনোয়ারা থানা পুলিশের একটি দল ভ্রাম্যমান আদালতকে সহযোগিতা করেন।

এসময় পরিত্যক্ত পাকা ভবনের পাশে সরকারি জায়গা দখল করে গড়ে উঠা পাঁচটি অবৈধ পরিবারকে উচ্ছেদ করা হয়। খুব শীঘ্রই পরিত্যক্ত পাকা ভবনগুলোও ভেঙ্গে ফেলা হবে বলেও জানান ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

Advertisement

জানা যায়, আনোয়ারা-বরকল সড়কের পাশে পুরাতন হাসপাতাল ভবন জরাজীর্ণ হয়ে গেলে অন্যত্র হাসপাতালের নতুন ভবন নির্মাণ করে এটাকে পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়। পরবর্তীতে পাকিজা আখতার ওরফে পাইক্কনি সেখানে স্বপরিবারে বসবাস করে মাদক ব্যবসায় জড়িয়ে পড়ে। মাদকের মামলায় পাইক্কনিকে পুলিশ বেশ কয়েকবার জেল হাজতে পাঠায়। ছাড়া পেয়ে সে আবারো মাদকের ব্যবসা চালাতে থাকে। সম্প্রতি তার পরিবারের সাথে আরো কয়েকটি পরিবার মাদকের ব্যবসায় যোগ দেয়। এই পরিত্যক্ত ভবনে নিয়মিত চলে মদ জুয়ার আসর। স্থানীয় শিশু- কিশোর যুবকরা সেখান থেকে মদ কিনে সহজেই আসক্ত হয়ে জড়িয়ে পড়ছে নানা অসামাজিক কর্মকান্ডে। বর্তমান উপজেলা হাসপাতাল এলাকায় মাদকাসক্ত কিশোর গ্যাংয়ের উৎপাতে বেড়ে গেছে চুরি ছিনতাইসহ নানা অপরাধমূলক কর্মকান্ড। সম্প্রতি এসব কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যদের হাসপাতালের অভন্তরে জুয়ার আসর বসাতে নিষেধ করায় হাসপাতালের নৈশ প্রহরীকে মারধরসহ প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করেন। এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে উপজেলা স্বাস্থ্য ও প: প: কর্মকর্তা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও আনোয়ারা থানার ওসি বরাবর চিঠি দিয়েছেন।

আনোয়ারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ জোবায়ের আহমদ বলেন, হাসপাতালের পরিত্যক্ত ভবন দখল করে একটি চক্র দীর্ঘদিন ধরে মাদকের ব্যবসাসহ নানা অপরাধমূলক কর্মকান্ড করে আসছিল। আজকে এসব মাদক ও জুয়ার আখড়া গুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। শীঘ্রই হাসপাতলের পাকা পরিত্যক্ত ভবনগুলো ভেঙ্গে ফেলা হবে।

এমকে

Advertisement

CTG NEWS