নৌকার হাল ধরতে বিএনপি নেতাকে মনোনয়ন!

159
 জাতীয় ডেস্ক : |  শুক্রবার, অক্টোবর ২৯, ২০২১ |  ৭:৫৫ অপরাহ্ণ
নৌকার হাল ধরতে বিএনপি নেতাকে মনোনয়ন!
       
Advertisement

দেশে তৃতীয় ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কুড়িগ্রাম জেলার ৩টি উপজেলার ২৮টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৮ নভেম্বর। এর মধ্যে কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার ৮টি, ফুলবাড়ি ৬টি এবং নাগেশ্বরীর ১৪টি ইউনিয়ন রয়েছে। এ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে দলীয় প্রার্থীর মনোনয়ন দিতে ব্যস্ত সময় পার করছে দলীয় সংগঠনগুলো।

তবে এবার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিএনপি দলীয়ভাবে অংশ না নেওয়ায় জেলা বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থীরা স্বতন্ত্রভাবে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। আর এ সুযোগে বিএনপির এক নেতা আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পাওয়ায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

Advertisement

এমন ব্যতিক্রম ঘটনা ঘটেছে জেলার নাগেশ্বরী উপজেলার নারায়ণপুর ইউনিয়নে। সেখানে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন নারায়ণপুর ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সভাপতি জহুরুল ইসলাম। এ নিয়ে আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতাকর্মীদের মাঝে তীব্র ক্ষোভ তৈরি হয়েছে। দলীয় নেতাকর্মী ও সাধারণ ভোটারদের মাঝে আলোচনা সমালোচনা শুরু হয়েছে সর্বত্রই।

এ বিষয়ে মনোনয়ন পরিবর্তনের অনুরোধ জানিয়ে নারায়ণপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান গত ২২ অক্টোবর একটি লিখিত আবেদনপত্র আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ডের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর প্রেরণ করেন। এ আবেদনপত্রে সুপারিশ করেন কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও সাবেক এমপি জাফর আলী, সাধারণ সম্পাদক আমন উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু।

মশিউর রহমান বলেন, জহুরুল ইসলাম জহির ২০০৪ সাল থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি ছিলেন। পরবর্তীতে তিনি জাতীয় পার্টিতে যোগ দেন। নারায়ণপুর ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির আহবায়কের দায়িত্বও পালন করেন। সাম্প্রতিককালে তিনি আওয়ামী লীগের গ্রাম কমিটির প্রাথমিক সদস্য পদ লাভ করেন। আওয়ামী লীগের ইউনিয়ন কিংবা ওয়ার্ড কমিটির কোথাও তার নাম নেই। তিনি নিজেকে প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দিলে কন্ঠভোটে মাত্র ৭ ভোট পেয়েছেন।

অন্যদিকে ছাত্রলীগ ও যুবলীগ করে বর্তমানে আওয়ামী লীগের সদস্য এবং মনোনয়নপ্রত্যাশী বেলাল হোসেন পেয়েছেন ৩৫ ভোট। এরপরও তৃণমূল নেতাদের ভোটে প্রথম হওয়া বেলাল হোসেনকে বাদ দিয়ে আওয়ামী লীগে যোগ দেওয়া বিতর্কিত ও সাবেক বিএনপি নেতা জহুরুল ইসলামকে কীভাবে মনোনয়ন দিল বিষয়টি আমার জানা নেই। এ ঘটনা স্থানীয় নেতাকর্মীরা কেউ মেনে নিতে পারছেন না।

তিনি আরও জানান, জহুরুল ইসলামের মনোনয়ন বাতিল করে বেলাল হোসেনকে নৌকার মনোনয়ন দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা বরাবর আবেদন করেছি।

তৃণমূলের সমর্থনে বেশি ভোট পাওয়া মনোনয়নপ্রত্যাশী বেলাল হোসেন বলেন, দলীয় নেতাকর্মীর সমর্থন পেয়েও ষড়যন্ত্র করে আমাকে নৌকার মনোনয়ন থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে। সাবেক বিএনপি নেতাকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। দলীয় শৃঙ্খলা রক্ষা করতে আওয়ামী লীগের ত্যাগীদেরই মনোনয়ন দেওয়ার দাবি জানান তিনি।

নৌকার প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পাওয়া সাবেক বিএনপি নেতা জহুরুল ইসলাম বলেন, অতীতে আমি বিএনপি করেছি এটি সত্য। বর্তমানে আমি আওয়ামী লীগ করছি। এজন্য বঙ্গবন্ধুর সৈনিক হিসেবে ও ইউনিয়নে আমার জনপ্রিয়তা বিবেচনা করে আওয়ামী লীগ থেকে আমাকে মনোনয়ন দিয়েছে। এতে দোষের কিছু আছে বলে মনে হয় না।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আমান উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু নারায়ণপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থিতা নিয়ে অভিযোগ ওঠার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ইউনিয়ন, উপজেলা এবং জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে জহুরুলের মনোনয়ন বাতিলের সুপারিশপত্র কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। এখন মনোনয়ন বোর্ড যা সিদ্ধান্ত নেবে তাই মেনে নিতে হবে।

এমজে/

Advertisement

CTG NEWS