টাকা আত্মসাৎ, ২৯ বছর পর সোনালী ব্যাংক কর্মকর্তার কারাদণ্ড!

180
 নিজস্ব প্রতিবেদক: |  শুক্রবার, অক্টোবর ২৯, ২০২১ |  ১২:২০ অপরাহ্ণ
       
Advertisement

১৯৯২ সালে চট্টগ্রাম জেলার সাতকানিয়া উপজেলায় সোনালী ব্যাংকের একটি শাখায় ম্যানেজার থাকাকালে শাহ আলম এক গ্রাহকের ঋণের ৯০ হাজার ৫১৩ টাকা জমা না দিয়ে নিজে আত্মসাৎ করেন। ফলে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ২৯ বছর পর সাবেক এক ব্যাংক ম্যানেজারকে কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।  

বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) চট্টগ্রাম বিভাগীয় বিশেষ জজ আদালতের বিচারক মুনশী আবদুল মজিদ মামলার রায় দেন।

Advertisement

দণ্ডবিধির ৪০৯ ধারায় আসামিকে ১০ বছরের কারাদণ্ড, ৫ লাখ টাকা জরিমানা এবং অনাদায়ে এক বছরের সাজা দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় ৫ বছরের কারাদণ্ড, এক লাখা জরিমানা এবং অনাদায়ে আরও ছয় মাসের সাজা দেওয়া হয়েছে।

দণ্ডিত শাহ আলম জামিনের বের হওয়ার পর এখন পলাতক বলে দুদকের আইনজীবী মাহমুদুল হক মাহমুদ জানান।

ব্যাংক কর্মকর্তাকে পৃথক দুটি ধারায় মোট ১৫ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একটি ধারায় ১০ বছরের কারাদণ্ড, ৫ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের কারাদণ্ড। আরেকটি ধারায় ৫ বছরের কারাদণ্ড, একলাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়। দণ্ডিত শাহ আলম জামিনে গিয়ে পলাতক ছিলেন। মামলায় আটজনের সাক্ষ্য নেয়া হয়।

সাতকানিয়া উপজেলায় সোনালী ব্যাংকের একটি শাখায় ম্যানেজার থাকাকালে শাহ আলম এক গ্রাহকের ঋণের ৯০ হাজার ৫১৩ টাকা জমা না দিয়ে নিজে আত্মসাৎ করার ঘটনায় তার বিরুদ্ধে ১৯৯২ সালে মামলাটি করেন তৎকালীন দুর্নীতি দমন ব্যুরো।

এমকে

Advertisement

CTG NEWS