ভিখারি মায়ের নবজাতকের দায়িত্ব নিলেন ওসি মঈনুর

422
 জালালউদ্দিন সাগর |  বুধবার, সেপ্টেম্বর ১, ২০২১ |  ৬:১২ অপরাহ্ণ
ওসি চান্দগাঁও
       
Advertisement

অনেক সময় মানবতা রক্তের সম্পর্ককেও ছাড়িয়ে যায়। ঠিক তেমনি এক মহৎ কাজ করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন চান্দগাঁও থানায় সদ্য যোগ দেওয়া ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মঈনুর রহমান। বর্তমান সমাজ ব্যবস্থায় যেখানে আপন মানুষ দায়িত্ব নিতে ভয় পায় সেখানে সম্পূর্ণ অপরিচিত অসহায় এক ভিক্ষুক মায়ের সদ্য ভুমিষ্ট হওয়া সন্তানের দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নিয়ে মহানবতার পরিচয় দিলেন পুলিশের এই কর্মকর্তা।

আজ ১ সেপ্টেম্বর,বুধবার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে নগরীর চান্দগাঁও থানা এলাকার শমসের পাড়া বস্তিতে ভিক্ষুক মায়ের ঘরে নিজে উপস্থিত হয়ে ওই সন্তানের দায়িত্ব নেন তিনি।

Advertisement

বিষয়টি সিটিজি নিউজকে নিশ্চিত করেছেন ওসি মঈনুর রহমান নিজেই। তিনি বলেন, সন্তান জন্ম দেওয়ার পর ভিক্ষুক মা নিজে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন, একই সাথে সদ্য জন্মানো শিশুটিও কিছুটা অসুস্থ। এই অবস্থায় মায়ের পক্ষে সন্তানের দেখভাল কিংবা ভিক্ষা করা কোনটাই সম্ভব না।

তিনি আরও বলেন, ভিক্ষুক মা ও নবজাতক সন্তান যতদিন না সুস্থ হচ্ছেন, মা নিজ কর্মে ফিরে যেতে না পারবেন ততদিন তাদের দেখাশোনা ও ভরণপোষণের দায়িত্ব নিলাম।

থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গতকাল ৩১ আগস্ট রাত সাড়ে ৮টার দিকে নগরীর চান্দগাঁও এলাকায় সড়কে প্রসব বেদনায় কাতরাচ্ছিলেন মিনু আকতার নামে স্বামীহারা এক ভিক্ষুক। প্রসববেদনায় অসুস্থ মিনু আক্তারকে চমেক হাসপাতালের গাইনি ওয়ার্ডে ভর্তি করায় চান্দগাঁও থানার টহলরত পুলিশ দল।

রাত ১০টার দিকে কাউকে না জানিয়ে হাসপাতাল থেকে বের হয়ে যায় মিনু। পরে পুলিশ ওয়ার্ডে মিনুকে খুঁজে না পেয়ে ফিরে আসে চান্দগাঁও থানায়। ওসি মঈনুর রহমানের নির্দেশনায় মিনুকে খুঁজে বের করতে আবারও পথে নামে পুলিশ। স্থানীয় মানুষ ও ভিক্ষুকদের জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশ জানতে পারে মিনা চান্দগাঁও থানা এলাকার শমসেরপাড়া বস্তিতে বসবাস করেন।

পরে রাত সাড়ে ১১টার দিকে ওই বস্তিতে মিনু আক্তারের খোঁজ পায় পুলিশ। তার কিছুক্ষণ আগেই ফুটফুটে একটি পুত্র সন্তানের জন্ম দেন ভিক্ষুক মা। ছেলে ও মায়ের সার্বিক অবস্থা দেখে তাদের সাহায্যে হাত বাড়িয়ে দেন ওসি মঈনুর রহমান। নিজেই ভুমিষ্ট নবজাতকের দায়িত্ব নিয়ে মানবতার নজির দেখালেন বাংলাদেশ পুলিশের এই সদস্য।

এসএম

Advertisement

CTG NEWS