ফোন পেয়ে প্রসূতিকে রক্ত দিতে গেলেন থানার ডিউটি অফিসার

209
 নিজস্ব প্রতিবেদক |  রবিবার, জুলাই ২৫, ২০২১ |  ৭:৩৮ অপরাহ্ণ
ফোন পেয়ে প্রসূতিকে রক্ত দিতে গেলেন থানার ডিউটি অফিসার
       

গভীর রাতে কোতোয়ালী থানায় ফোন এলো দিনমজুর ওমর ফারুকের। আগের দিন বিকেলে এই থানার সাহায্যেই প্রসূতি স্ত্রীকে ভর্তি করিয়েছেন হাসপাতালে। কিন্তু রাতে সন্তান জন্মদানের পরপরই তার রক্তের প্রয়োজন হয়। এই সময়ে কোতোয়ালী থানা ছাড়া আর কোনো উপায় না দেখে সেখানেই ফোন দেন তিনি। ফোন পেয়ে সাথে সাথে হাসপাতালে রক্ত দিতে ছুটে যান ডিউটি অফিসার।

আজ ২৫ জুলাই, রোববার ভোররাতে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (চমেক) চিকিৎসাধীন ওই প্রসূতিকে রক্ত দেন উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. সাদ্দাম হোসেন।

Advertisement

মুমূর্ষু করোনা রোগীর বাসায় অক্সিজেন সিলিন্ডার পৌছে দেওয়া, গর্ভবতী নারীকে পুলিশ কর্মকর্তার গাড়িতে করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরে এবার প্রসূতি মাকে রক্তদানের মধ্য দিয়ে আরও একবার মানবিক পুলিশের ভূমিকা পালন করলো কোতোয়ালী থানা পুলিশ।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) সূত্রে জানা যায়, শনিবার (২৪ জুলাই) বিকালে এই কঠোর লকডাউনের মধ্যে গাড়ি না পেয়ে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে নিয়ে বিপদে পড়েন দিনমজুর ওমর ফারুক শান্ত। আর কোনো সমাধান না দেখে কোতোয়ালী থানায় ফোন দিয়ে নিজের অসহায়ত্বের কথা জানান তিনি। এসময় ত্রাতা হিসেবে আবির্ভূত হয়ে নিজ গাড়িতে করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তাদের পৌছে দেন কোতায়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নেজাম উদ্দিন।

ওসি নেজাম উদ্দিন সিটিজিনিউজকে জানান, আজ রোববার ভোররাতে থানার মোবাইলে ফোন করে সেই ওমর ফারুক তার প্রসূতি স্ত্রীর জরুরী বি পজিটিভ রক্ত প্রয়োজন বলে জানায়। ফোন পেয়ে থানার এসআই মো. সাদ্দাম হোসেন ছুটে যান চমেকে রক্ত দিতে।

কেএন

Advertisement

CTG NEWS